myUpchar प्लस+ सदस्य बनें और करें पूरे परिवार के स्वास्थ्य खर्च पर भारी बचत,केवल Rs 99 में -

যোনিগত ইস্ট সংক্রমণ, থ্রাশ হিসাবেও পরিচিত, হচ্ছে সর্বাধিক পরিচিত সংক্রমণগুলির একটি যা প্রতিটি নারী তাঁর জীবনকালে অন্ততঃ একবার অনুভব করেছেন। যদিও এটা সহজেই নিরাময়যোগ্য, এর উপসর্গগুলি আপনার উপর ধকল আনে এবং আপনার দৈনন্দিন কাজকর্মে বিরূপ প্রভাব ফেলে। 

এর পিছনে সর্বাধিক দেখা অপরাধী হল ইস্ট, ক্যান্ডিডা। ক্যান্ডিডা একটা সহাবস্থানকারী (যা স্বাভাবিকভাবে  কোনও স্থানে বাস করছে দেখা যায়) জীবাণু হিসাবে আমাদের মুখ, গলা, এবং যোনিপথে দেখা যায়। যাই হোক, যখন অবস্থাগুলি অনুকূল (সুবিধাজনক) হয়, এটা বৃদ্ধি পেতে শুরু করে এবং যোনিপথে বসতি স্থাপন করে। থ্রাশ-এর বৈশিষ্ট্য চিহ্নিত হয় লালচেভাব, চুলকানি, এবং আপনার যোনিপথ থেকে স্রাব নির্গমন দ্বারা। এছাড়া ভালভা (আপনার যোনিপথের মুখের চারপাশের চামড়া) ক্ষুদ্র সাদা এলাকা দেখায় এবং বেশির ভাগ সময় একটা বাজে গন্ধ সঙ্গে থাকে। মৃদু ঘটনাগুলি সহজ ঘরোয়া প্রতিকারগুলি ব্যবহার করে চিকিৎসা করা যেতে পারে কিন্তু বারবার ঘটা বা গুরুতর ঘটনাগুলি তৎক্ষণাৎ আপনার চিকিৎসক অথবা স্ত্রীরোগবিশেষজ্ঞ দ্বারা চিকিৎসা করানো উচিত।    

বাড়িতে নিজের চিকিৎসা করার আগে, নিশ্চিত হন যে আপনি যা সন্দেহ করছেন সেটা আসলে একটা ছত্রাক সংক্রমণ

যদি আপনার উপসর্গগুলি নীচে উল্লিখিতগুলির থেকে অন্য কিছু না হয়, আপনি নীচের সহজ অথচ কার্যকর ঘরোয়া প্রতিকারগুলি চেষ্টা করতে পারেনঃ 

  1. যোনিগত ইস্ট সংক্রমণের জন্য অ্যাপল সাইডার ভিনিগার - Apple Cider Vinegar for vaginal yeast infection in Bengali
  2. যোনিগত ইস্ট সংক্রমণের জন্য প্রোবায়োটিকস - Probiotics for vaginal yeast infection in Bengali
  3. যোনিগত ইস্ট সংক্রমণের জন্য দই - Yogurt for vaginal yeast infection in Bengali
  4. যোনিগত ইস্ট সংক্রমণের জন্য নারকেল তেল - Coconut oil for vaginal yeast infection in Bengali
  5. যোনিগত ইস্ট সংক্রমণের জন্য চা গাছের তেল - Tea tree oil for vaginal yeast infection in Bengali
  6. যোনিগত ইস্ট সংক্রমণের জন্য বোরিক অ্যাসিড - Boric acid for vaginal yeast infection in Bengali
  7. যোনিগত সংক্রমণের জন্য ক্যালেঞ্জুলা তেল - Calendula oil for vaginal yeast infection in Bengali
  8. যোনিগত ইস্ট সংক্রমণের জন্য ওরেগানো তেল - Oregano oil for vaginal yeast infection in Bengali
  9. যোনিগত ইস্ট সংক্রমণের জন্য অ্যালো ভেরা - Aloe vera for vaginal yeast infection in Bengali
  10. যোনিগত ইস্ট সংক্রমণের জন্য ক্র্যানবেরি জুস - Cranberry juice for vaginal yeast infection in Bengali
  11. যোনিগত ইস্ট সংক্রমণের জন্য রসুন - Garlic for vaginal yeast infection in Bengali
  12. যোনিগত ইস্ট সংক্রমণে সূতির অন্তর্বাস পরুন - Wear cotton underwear in vaginal yeast infection in Bengali
  13. যোনিগত ইস্ট সংক্রমণ সম্পর্কে কিছু মৌলিক তথ্য - Some basic facts about vaginal yeast infections in Bengali

ইস্ট সংক্রমণের সঙ্গে লড়াই করার জন্য অ্যাপল সাইডার ভিনিগার অত্যন্ত কার্যকর। যাই হোক, আপনার সতর্ক থাকা উচিত যে অ্যাপল সাইডার ভিনিগার ছাড়া অন্য আর কোনও ভিনিগার ব্যবহার করা উচিত নয় কারণ সেগুলো সংক্রমণের সঙ্গে লড়াই করার চেয়ে বরঞ্চ এটা বাড়িয়ে দেবে। অ্যাপল সাইডার ভিনিগার জল দিয়ে তরল করুন এবং নিজেকে ধোয়ার জন্য এটা ব্যবহার করুন। আপনি তরল ভিনিগার যৌনাঙ্গ এলাকায়ও লাগাতে পারেন, 20 মিনিট এটা রাখুন এবং পরিস্কার জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। অ্যাপল সাইডার ব্যবহার করার আর একটা উপায় হল উষ্ণ জল ভরা আপনার বাথটাবে দুই কাপ অ্যাপল সাইডার ঢালা। জলে 15-20 মিনিট বসে থাকুন। একটা সুতির তোয়ালে দিয়ে নিজেকে শুকনো করুন। নিজেকে রুক্ষভাবে মুছবেন না যেহেতু সেটা জ্বলন বাড়াতে পারে।  

এগুলো ক্যাপসুল এবং সেই সাথে সলিউশন হিসাবে পাওয়া যায় যার মধ্যে স্বাস্থ্যকর ব্যাক্টেরিয়া (বেশির ভাগ ল্যাক্টোব্যাসিলাস) আছে। এগুলো শুধুমাত্র সংক্রমণ প্রতিরোধে সাহায্য করে তাই নয়, উপরন্তু যোনির pH ভারসাম্য রাখায়ও সাহায্য করে। একটা ভারসাম্যযুক্ত pH ইস্ট-এর অতিবাড় কমাতে সাহায্য করে। প্রোবায়োটিক সম্পূরকগুলি যোনির ভিতরে স্থাপন করার ক্যাপসুল হিসাবে অথবা প্রতিদিন পানীয় হিসাবে ব্যবহার করা যায়।   

এগুলো সেইসমস্ত মহিলাদের ক্ষেত্রেও খুব কাজে আসে যাদের বারবার ছত্রাক সংক্রমণ ঘটে।  

দই হচ্ছে ল্যাক্টিক অ্যাসিড ব্যাক্টেরিয়া (জীবাণু) যেমন ল্যাক্টোব্যাসিলাস-এর একটা সমৃদ্ধ উৎস। এই ব্যাক্টেরিয়া যৌনাঙ্গ এলাকার সামগ্রিক স্বাস্থ্য বজায় রাখায় একটা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে, বিশেষতঃ যোনিপথ। এটা বাড়তি ছত্রাক কোষগুলি ধ্বংস করে যেগুলি যোনিপথ এলাকায় বাসা বাঁধে এবং সংক্রমণ সৃষ্টি করে। আপনি দই খেতে পারেন অথবা যৌনাঙ্গ এলাকায় এটা লাগাতে পারেন এবং সেখানে এক ঘণ্টা এটা রেখে দিন। দিনে 2-3 বার এটা করুন। পরিস্কার জল দিয়ে নিখুঁতভাবে ধুয়ে ফেলুন।   

2004 সালের একটা সমীক্ষা বলে যে নারকেল তেলের ছত্রাক-রোধী গুণ রয়েছে এবং ইস্ট সংক্রমণের বিরুদ্ধে অত্যন্ত কার্যকর, বিশেষতঃ সেগুলি যা ঔষধ প্রতিরোধী। সেজন্য, সংক্রামিত এলাকায় নারকেল তেল ঘষে, আপনি হয়তো সংক্রমণ থেকে শীঘ্র মুক্তি পেতে পারেন। দিনে 3-4 বার নারকেল তেল ব্যবহার করুন। 

চা গাছের তেল এর প্রাকৃতিক ছত্রাক-রোধী এবং জীবাণু-রোধী গুণগুলির জন্য পরিচিত। সেজন্য, এটা যোনিগত ইস্ট (ছত্রাক) সংক্রমণগুলির চিকিৎসার জন্য অন্যতম ঘরোয়া প্রতিকার হিসাবেও ব্যবহৃত হয়। যাই হোক, এটার ঘনীভুত রূপ হচ্ছে আঠালো এবং একটা জ্বলনের সংবেদন সৃষ্টি করতে পারে। সেজন্য আপনার উচিত সর্বদা চা গাছের তেল জল, অ্যামন্ড অয়েল অথবা অলিভ অয়েল-এর সাথে মিশিয়ে পাতলা করা। দিনে কয়েকবার তরলীকৃত দ্রবণ সংক্রামিত এলাকায় ঘষুন।   

বোরিক অ্যাসিড হচ্ছে একটা বীজাণুনিবারক। এটার ছত্রাক-প্রতিরোধী এবং সংক্রামক রোগের বীজনাশক গুণাবলীও রয়েছে। আপনি বোরিক অ্যাসিড জল দিয়ে পাতলা করার জন্য মিশ্রিত করতে এবং সংক্রামিত এলাকা জুড়ে এটা লাগাতে পারেন। কয়েক মিনিটের জন্য এটা রেখে দিন এবং সম্পূর্ণভাবে পরিস্কার করে ধুয়ে ফেলুন। দু’সপ্তাহ ধরে এটা রোজ লাগান।  

ক্যালেঞ্জুলা অফিসিনালিস-এর ফুল থেকে বার করা ক্যালেঞ্জুলা তেল হল একটা এসেনশিয়াল অয়েল। 2008 সালে দক্ষিণ ব্রাজিলে চালানো একটা গবেষণা দেখায় যে এই এসেনশিয়াল অয়েলের একটা ছত্রাক-প্রতিরোধী শক্তিশালী ক্রিয়াকলাপ আছে। সেজন্য, বাড়িতে যোনিগত ইস্ট সংক্রমণ নিরাময় করতে এটা ব্যবহার করা যেতে পারে। দিনে 2-3 বার সংক্রামিত এলাকায় তেলটা ঘষুন। 

2010 সালের একটা সমীক্ষায়, ওরেগানো তেলে অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট এবং জীবাণু-প্রতিরোধী গুণগুলি আবিষ্কৃত হয়েছে। এই তেল একটা গাছের, ওরিগেনাম ভালগারে, শুকনো পাতাগুলি থেকে নিংড়ে বার করা হয়। এই তেল তরলীকৃত রূপে দিনে 2-3 বার যেখানে ইস্ট সংক্রমণ বিদ্যমান সেই জায়গা জুড়ে ব্যবহার করা যেতে পারে।   

অ্যালো ভেরাতে পাওয়া এনজাইম, ভিটামিন, এবং অ্যামিনো অ্যাসিডগুলির প্রদাহ-প্রতিরোধী এবং ছত্রাক-প্রতিরোধী গুণাবলী রয়েছে। আপনার ইস্ট সংক্রমণ নিরাময় করার জন্য, আপনি দুই চা-চামচ অ্যালো ভেরা ব্যবহার করতে পারেন, এক কাপ কমলালেবুর রসের সাথে এটা মেশান এবং প্রতিদিন এটা পান করুন। 

ক্র্যানবেরি জুস (এক ধরণের ছোট, লাল টক জাম) ইস্ট এবং অন্যান্য ছত্রাক সংক্রমণগুলির বিরুদ্ধে ফলপ্রদ হিসাবে প্রমাণিত হয়েছে। এতে বেঞ্জোয়িক অ্যাসিড আছে যা 1968 সালে চালানো একটা পুরানো গবেষণায় ছত্রাক-প্রতিরোধী গুণাবলী আছে বলে দেখা গিয়েছিল। ক্র্যানবেরি জুস পাতলা করা বা এটাকে মিষ্ট করে তোলা বিনা পান করুন। দিনে এটা কয়েকবার করা ইস্ট সংক্রমণ নিরাময়ে সাহায্য করবে।    

বহু গবেষক ইস্ট সংক্রমণের বিরুদ্ধে টাটকা রসুনের রসের ক্রিয়া পরীক্ষা করেছেন এবং প্রমাণ যোগান দিয়েছেন। আমরা আপনাকে পরামর্শ দিচ্ছি নিজে নিজে রসুনের কোয়াগুলো ব্যবহার করবেন না যেহেতু ওগুলো ঢোকানো বা বার করা কঠিন। রসুনের ক্যাপসুলগুলো মৌখিকভাবে সেবন করা হয় এবং রসুন নির্যাসের ক্রিম যোনির ত্বকের চারপাশে লাগানো হয়। এগুলো ওষুধের দোকানগুলিতে পাওয়া যায় এবং আপনার ইস্ট সংক্রমণের নিরাময়ের জন্য ব্যবহৃত হতে পারে। মাত্রার (ডোসেজ) নির্দেশগুলি সতর্কভাবে পড়ুন। যদি এটা জ্বলন সৃষ্টি করে এটা ব্যবহার করা বন্ধ করুন। সন্দেহ হলে, আপনার ডাক্তারকে জিজ্ঞাসা করুন যে এটা আপনার পক্ষে চিকিৎসার সঠিক পথ কিনা।  

যোনিপথ এলাকায় উষ্ণ এবং আর্দ্র পরিবেশ ইস্ট-এর বৃদ্ধিতে সহায়ক। সেজন্য, আঁটো পোশাক, সিন্থেটিক অন্তর্বাস, ইত্যাদি আপনার অবস্থা আরও খারাপ করবে। অতএব, এটা গুরুত্বপূর্ণ যে আপনি একটা শুকনো এবং ঢিলা সূতির অন্তর্বাস পরুন অথবা আদৌ কোনও অন্তর্বাস নয়। এটা করা ইস্ট বাড়ায় বাধা দেবে এবং সংক্রমণ নিরাময়ে সাহায্য করবে।   

এখানে যোনিগত ইস্ট সংক্রমণের উপর কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দেওয়া হল যার সম্বন্ধে আপনার সচেতন হওয়া উচিত। 

  1. প্রতিরোধ - Prevention in Bengali
  2. কারণসমূহ - Causes in Bengali
  3. উপসর্গসমূহ - Symptoms in Bengali
  4. ঔষধ - Medicines in Bengali

প্রতিরোধ - Prevention in Bengali

উপরে উল্লিখিত প্রতিষেধকগুলি ইস্ট সংক্রমণ নিরাময় করার জন্য। যাই হোক, যোনিগত এবং সামগ্রিক স্বাস্থ্য বজায় রাখা এবং অসুখগুলি থেকে দূরে থাকা সর্বদা ভাল। আপনার শরীরে এই ধরণের কোনও সংক্রমণের বৃদ্ধি প্রতিরোধ করার জন্য কি করা উচিত এবং কি করা উচিত নয় নীচে তার একটা তালিকা দেওয়া হলঃ   

  • সুতির পোশাক
    সূতির পোশাক এবং অন্তর্বাস পরা যোনিগত এলাকায় উষ্ণতা এবং আর্দ্রতার বৃদ্ধি এবং ইস্ট-এর অতিবাড় রোধ করবে।
     
  • ঢিলা পোশাক
    আঁটো পোশাক আপনার যোনিপথকে কোনও তাজা হাওয়া পেতে দেয়না। এটা ইস্ট বাড়তে এবং সংক্রমণ সৃষ্টি করতে অনুকূল পরিবেশ যোগাবে। সেজন্য, আপনার যোনিপথ স্বাস্থ্যকর এবং সংক্রমণ-মুক্ত রাখতে ঢিলা, বাতাস চলাচল করে এমন পোশাক পরা বাঞ্ছনীয়।
     
  • অ্যালকোহল পান কমান
    অ্যালকোহল যোনিগত এলাকার জলশূন্যতা সৃষ্টি করে এবং সংক্রামক ব্যাক্টেরিয়া এবং ছত্রাকগুলির অতিবাড় ঘটায়। সেজন্য, সর্বদা পরামর্শ দেওয়া হয় যে আপনি প্রস্তাবিত পরিমাণের মধ্যে অ্যালকোহল পান করুন।
     
  • স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন
    নোংরা পোশাক পরবেন না। আপনার ঘর্মাক্ত জিম পোশাক বা কাজের পোশাক অবিলম্বে পরিবর্তন করুন এবং বাড়িতে পরিস্কার পোশাক পরুন। আপনার যৌনাঙ্গ এলাকা নোংরা বা দূষিত হাত দিয়ে স্পর্শ করবেন না।
     
  • আপনি নিজেকে সঠিক উপায়ে পরিস্কার করে মুছুন
    স্নান করার পরে নিজেকে সামনে থেকে পিছনে মুছে পরিস্কার করুন। এটা আপনার মলদ্বার থেকে ব্যাক্টেরিয়াকে আপনার যোনিগত এলাকা সংক্রামিত করতে বাধা দেবে।
     
  • আপনার ত্বকের প্রতি নরম হোন
    যোনিগত ত্বক একটা সংবেদনশীল জায়গা এবং এটার pH ভারসাম্য রাখা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। খড়খড়ে সাবান, সুবাসিত বা সুরভিত বডি ওয়াশ অথবা বাথ সল্ট ব্যবহার করবেন না কারণ এইসমস্ত দ্রব্য যোনির pH বৃদ্ধি করে এবং ইস্ট এবং অন্যান্য সংক্রামক ছত্রাক এবং ব্যাক্টেরিয়ার বৃদ্ধিকে সাহায্য করে।
     
  • যোনিগত এলাকা শুকানো
    স্নানের পর নিজেকে মোছার সময় নম্র হোন। কর্কশভাবে মোছা আপনার যৌনাঙ্গের ত্বককে জ্বালাতে পারে এবং সংক্রমণ হওয়ার সম্ভাবনা বৃদ্ধি করতে পারে। একটা নরম তোয়ালে ব্যবহার করুন এবং নিজেকে আলতোভাবে শুকনো করুন।
     
  • আপনার যোনিপথে জলের ধারা দেবেন না
    আপনি হয়তো ভাবতে পারেন যে যোনিপথ বারবার বাইরে থেকে এবং সেই সাথে ভিতর থেকে পরিস্কার করা আপনাকে সংক্রমণ মুক্ত রাখবে। যাই হোক, এটা কিন্তু সেরকম নয়। আমাদের যোনিপথ একটা স্ব-পরিস্করণ ক্যানাল যা আপনার জলের ধারা অথবা অন্যান্য রাসায়নিক (ডুশ দেওয়া) দিয়ে এটা পরিস্কার করা ছাড়াই এর স্বাস্থ্যবিধির তদারক নিজেই করতে পারে। এই স্বাভাবিক পরিস্কারককে সেরকমই থাকতে দিন এবং ভিতরের এলাকা সম্বন্ধে খুব বেশি চিন্তা করবেন না কারণ এটা স্বাভাবিকভাবে নিজের ভূমিকা অত্যন্ত সুন্দরভাবে পালন করার জন্য প্রশিক্ষিত।  
     
  • প্যান্টি লাইনারগুলো ব্যবহার করবেন না
    স্যানিটারি প্যাড এবং প্যান্টি লাইনারগুলো শুধুমাত্র আপনার রজঃস্রাবের সময় ব্যবহার করুন। সেগুলোকে অন্যথায় ব্যবহার করলে আপনার যোনিগত ত্বক শুষ্ক করে দিতে পারে এবং জ্বলন সৃষ্টি করতে পারে। এটা সেই এলাকায় চুলকানি, চিড়, ক্ষত, ইত্যাদির সাথে সংক্রমণ বৃদ্ধির সহায়ক হতে পারে।
     
  • আপনার সংক্রমণ থাকাকালীন যৌনসঙ্গম এড়িয়ে চলুন
    আপনি যখন ইস্ট সংক্রমণ থেকে কষ্ট পাচ্ছেন তখন যৌনসঙ্গম করলে আপনার যৌনাঙ্গ এলাকায় জ্বলন বৃদ্ধি করবে এবং আপনার অবস্থা আরও খারাপ করতে পারে। সেজন্য, যখন আপনার চিকিৎসা চলছে তখন যৌনসঙ্গম এড়িয়ে চলুন।

(আরও পড়ুন: যোনিগত স্বাস্থ্য)

কারণসমূহ - Causes in Bengali

যোনিপথ হল একটা নমনীয় অথচ কমনীয় এলাকা। এটা প্রকৃতিতে স্বাভাবিকভাবে স্ব-পরিস্কারক, অর্থাৎ আমাদের শরীর কিছু এনজাইম ক্ষরণ করে যা যোনিকে নিজেই পরিস্কার রাখতে সাহায্য করে। কিন্তু তাসত্ত্বেও আপনি কোনও সংক্রমণে ভুগতে পারেন যা সাধারণতঃ মৃদু এবং সহজেই নিরাময়যোগ্য, কতগুলি অন্তর্নিহিত চিকিৎসাগত অবস্থা আছে যা আপনার সংক্রমণ হওয়ার বিপদ বাড়াতে পারে, যেমনঃ

  • গর্ভাবস্থা
    গর্ভাবস্থার হরমোনগুলি বিভিন্ন শারীরিক পরিবর্তনগুলির জন্য দায়ী। সেজন্য, এটা আপনাকে সেই সাথে যোনিগত ইস্ট সংক্রমণের প্রতি প্রবণ করে তুলতে পারে। যদি আপনি কোনও সংক্রমণ আক্রান্ত হন, ঘরোয়া প্রতিষেধকগুলি চেষ্টা করবেন না এবং আপনার সঠিক চিকিৎসার জন্য আপনার স্ত্রীরোগবিশেষজ্ঞের কাছে যান কারণ উপরে উল্লিখিত কয়েকটা প্রতিষেধক আপনার বাচ্চার উপরে বিরূপ প্রভাব ফেলতে পারে। 
     
  • মদ্যপান
    উপরে যেমন আমরা উল্লেখ করেছি, অত্যধিক মদ্যপান আপনার যোনিগত ইস্ট সংক্রমণ হওয়ার সম্ভাবনাগুলিকে বাড়াবে।
     
  • জন্মনিরোধকসমূহ   
    কিছু জন্মনিরোধক বড়িও আপনার যোনিগত এলাকার পরিবেশ বদলে দিতে পারে এবং আপনাকে সংক্রমণ প্রবণ করতে পারে।
     
  • ডায়াবেটিস
    ডায়াবেটিস সংক্রমণ আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনাগুলি বাড়ায় কারণ ইস্ট বেঁচে থাকার জন্য আরও বেশি চিনি লভ্য হয়।
     
  • দুর্বল রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থা
    একটা দুর্বল রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থা যা জন্ম থেকে বিদ্যমান অথবা এইচআইভি-এইডস-এর মত কোনও কোনও ব্যাধির দ্বারা ঘটিত, সংক্রমণের বিরুদ্ধে শরীরের লড়াই করার ক্ষমতা কমিয়ে দেয় এবং আপনাকে সংক্রামক শক্তিগুলির একটা সহজ নিশানা করে তোলে। 
     
  • অ্যান্টিবায়োটিকস
    দীর্ঘমেয়াদী অ্যান্টিবায়োটিক চিকিৎসাও স্বাস্থ্যকর ব্যাক্টেরিয়া ধ্বংস করতে পারে যেগুলি যোনিপথে ইস্ট কোষগুলির একটা ভারসাম্য রাখার জন্য গুরুত্বপূর্ণ। যখন এইসমস্ত ব্যাক্টেরিয়ার সংখ্যা কমে যায়, ইস্ট অতিবৃদ্ধির একটা সুযোগ পায় এবং সংক্রমণ ঘটায়।
     
  • এসটিডি (যৌনগতভাবে সঞ্চারিত ব্যাধিসমূহ)
    যৌনগতভাবে সঞ্চারিত ব্যাধিগুলিও স্বাস্থ্যকর ব্যাক্টেরিয়ার সংখ্যা কমায় এবং ইস্টগুলোর বৃদ্ধি পাওয়ার অনুকূল অবস্থা তৈরি করে। 

উপসর্গসমূহ - Symptoms in Bengali

কোনও ইস্ট সংক্রমণের সাধারণ উপসর্গসমূহের মধ্যে নীচে উল্লিখিতগুলি সামিল থাকেঃ

  • যোনিপথ এবং সংক্রামিত অঞ্চলে চুলকানি।
  • যোনিপথের ভিতরে এবং চারপাশে লালচেভাব।
  • অস্বস্তি এবং মৃদু যন্ত্রণা।
  • এলাকাটিতে অত্যধিক আর্দ্রতা।  
  • যোনিপথ থেকে চিজ বা দইয়ের মত সাধারণভাবে সাদা রঙের স্রাব।
  • যৌনাঙ্গ অঞ্চলের বর্ধিত তাপমাত্রা।
  • স্রাব থেকে একটা বিশ্রী এবং অপ্রীতিকর গন্ধ।
  • প্রস্রাবের সময় যন্ত্রণা। (আরও পড়ুন: যন্ত্রণাদায়ক প্রস্রাবের কারণসমূহ)

স্ত্রীরোগবিশেষজ্ঞের সাথে কখন দেখা করা উচিত

উপরে-উল্লিখিত প্রতিষেধকগুলি ব্যবহার করার পরে যদি আপনার সংক্রমণ দূর না হয়, আপনার উচিত সংক্রমণের কারণ জানার জন্য তৎক্ষণাৎ আপনার স্ত্রীরোগবিশেষজ্ঞকে দেখানো। বারবার অথবা চিকিৎসা না করে ফেলে রাখা সংক্রমণ ইঙ্গিত করতে বা নিয়ে যেতে পারে গুরুতর চিকিৎসাগত অবস্থাগুলির দিকে যেমন যৌনগতভাবে সঞ্চারিত সংক্রমণ বা ব্যাধি। যদি আপনি নীচের কোনও একটা উপসর্গের সম্মুখীন হন, আপনার একজন ডাক্তারকে সঙ্গে সঙ্গে দেখানো উচিত।  

  • যোনিগত এলাকায় সংক্রমণ যদি আপনি গর্ভবতী হন। 
  • যদি সংক্রমণ বারবার ঘটে (দুবারের বেশি)।
  • যৌনাঙ্গ এলাকায় ক্ষত বা আঁচিল বা জড়ুল।
  • শ্রোণী (পেলভিক) এলাকায় যন্ত্রণা।
  • কোনও অজানা সঙ্গী অথবা বহু সঙ্গীর সাথে অসুরক্ষিত যৌন সহবাস।
  • যোনিগত সংক্রমণের সাথে জড়িত জ্বর।

ঔষধ - Medicines in Bengali

এগুলো হল সেইসমস্ত ঔষধ যা আপনার কাছের ওষুধের দোকানগুলিতে সহজেই পাওয়া যায় এবং এর মধ্যে আছে ছত্রাক-প্রতিরোধী ক্রিম, মলম, সলিউশন, লোশন, যোনি-সংক্রান্ত ট্যাবলেট, এবং ছোট দ্রবণীয় ব্লক (পেসারিজ) অথবা সাপোজিটোরি। নীচে কয়েকটি ওটিসি (প্রেসক্রিপশন ছাড়া) ছত্রাক-প্রতিরোধী ঔষধ আছে যেগুলো আপনি বাড়িতে আপনার সংক্রমণ নিরাময় করার জন্য ব্যবহার করতে পারেনঃ 

  • ক্লোট্রাইম্যাজোল
  • মিকোন্যাজোল নাইট্রেট
  • বিউটোকনাজোল
  • টিয়োকনাজোল
  • বিউটেনাফাইন হাইড্রোক্লোরাইড
  • উপরের সবকটার মিশ্রণ

এই ঔষধগুলি বেশির ভাগই একটা প্রলেপক কাঠি (অ্যাপ্লিকেটর স্টিক) সহ পাওয়া যায় যা যোনির ভিতরে ঔষধ লাগানোর জন্য ব্যবহৃত হয়। প্রলেপ লাগানো শুরু করার আগে, আপনার উচিত ফার্মাসিস্টকে প্রয়োগের সঠিক পদ্ধতি সম্বন্ধে জিজ্ঞাসা করা অথবা ঔষধের প্যাকেজিং-এর উপরে প্রদত্ত নির্দেশগুলি পড়া।

এটা গুরুত্বপূর্ণ যে আপনি অন্যান্য যেসমস্ত ঔষধগুলি নিচ্ছেন সেসম্বন্ধে এবং এর মধ্যে কোনটা এইসমস্ত ছত্রাক-প্রতিরোধী ঔষধগুলির ক্রিয়ায় বাধা দিতে পারে এবং তার উল্টোটা ফার্মাসিস্টকে আপনি বলুন।  

যোনিগত ইস্ট (ছত্রাক) সংক্রমণের জন্য ঘরোয়া প্রতিকার की जांच का लैब टेस्ट करवाएं

Health Check - STD Package ( Sexually Transmitted Disease)

25% छूट + 5% कैशबैक
और पढ़ें ...

References

  1. Falagas ME, Betsi GI, Athanasiou S. Probiotics for prevention of recurrent vulvovaginal candidiasis: a review. J Antimicrob Chemother. 2006 Aug;58(2):266-72. Epub 2006 Jun 21. PMID: 16790461
  2. Abdelmonem AM, Rasheed SM, Mohamed ASh. Bee-honey and yogurt: a novel mixture for treating patients with vulvovaginal candidiasis during pregnancy. Arch Gynecol Obstet. 2012 Jul;286(1):109-14. PMID: 22314434
  3. Office on Women's Health [Internet] U.S. Department of Health and Human Services; Vaginal yeast infections.
  4. Center for Disease Control and Prevention [internet], Atlanta (GA): US Department of Health and Human Services; Vaginal Candidiasis
  5. MedlinePlus Medical Encyclopedia: US National Library of Medicine; Vaginal yeast infection
  6. Better health channel. Department of Health and Human Services [internet]. State government of Victoria; Vaginal thrush
ऐप पर पढ़ें