myUpchar प्लस+ सदस्य बनें और करें पूरे परिवार के स्वास्थ्य खर्च पर भारी बचत,केवल Rs 99 में -

পেশীতে খিঁচুনি কি?

যখন পেশী জোর করে সংকুচিত হয়ে যায়, শক্ত হয়ে যায় এবং পুনরায় শিথিল হতে ব্যর্থ হয়, তখন পেশীতে খিঁচুনি বা পেশীতে শিরটান ধরে। এর ফলে ব্যক্তির হাঁটতে বা ঐ বিশেষ অঙ্গ নাড়াতে অসুবিধা হয়। যে কোনো পেশীতে খিঁচুনি ধরতে পারে, কিন্তু সবচাইতে সাধারণভাবে আক্রান্ত হয় পায়ের গুল, পায়ের পিছনের পেশী, পায়ের পাতা ও তলপেটের পেশী।

এর প্রধান লক্ষণ ও উপসর্গগুলো কি কি?

পেশীতে খিঁচুনি, যে কোনো জায়গার, যে কোনো বয়সে এবং যে কোনো লিঙ্গে এবং যে কোনো সময় হতে পারে। যে সমস্ত উপসর্গগুলো চোখে পড়ে সেগুলো হল পেশীতে শক্তভাব, জোড় নাড়াতে অক্ষমতা, অল্প হাঁটাচলা করতে পারা, অস্বাভাবিক ভঙ্গী, জোড়ের মধ্যে শক্তভাব এবং, খুব বিরল ক্ষেত্রে, আক্রান্ত জোড়ের কার্যক্ষমতা কমে যাওয়া। পরীক্ষা করলে, একটি অতিরঞ্জিত প্রতিফলনের প্রতিক্রিয়া প্রকাশ পায় এবং পেশীতে স্পর্শ করলে ব্যথা হয়।

এর প্রধান কারণগুলো কি কি?

কিছু মুখ্য কারণ থাকে যার জন্য পেশীতে খিঁচুনি ধরে। তার মধ্যে রয়েছে পেশীর অতিরিক্ত ব্যবহারে, অতিরিক্ত ওজনের সাথে প্রশিক্ষণ, নিয়মিত প্রসারণ না করা, জলের অভাবে এবং কোনো কোনো মহিলার মাসিকের আগে খিঁচুনি লাগে।

পেশীতে খিঁচুনি কিছু অন্তর্নিহিত মেডিকেল অবস্থার কারণেও হয়, যেমন, ইলেক্ট্রোলাইটের অসাম্য, পেশীতে যথেষ্ট রক্ত সরবরাহ না হওয়া, নার্ভের উপর চাপ পরা, গর্ভাবস্থা, স্প্যাস্টিক প্যারালাইসিস, স্ট্রোক এবং, বিরল ক্ষেত্রে, ক্র্যাব অসুখ (একটা অসুখ যেখানে স্নায়ুতন্ত্র ক্ষতিগ্রস্ত হয়)।

এটি কিভাবে নির্ণয় ও চিকিৎসা করা হয়?

কোনো বিশেষ কারণের উপস্থিতি জানার জন্য বিশদ চিকিৎসাগত ইতিহাসের উপর এই রোগের নির্ণয় নির্ভর করে। ইতিহাস নিজেই এর ছবি পরিষ্কার করে দেয় এবং সাধারণত কোনো রক্তপরীক্ষার দরকার হয় না।

হাল্কা প্রসারণ, মালিশ এবং গরম সেঁক দিলে সাধারণত পেশী শিথিল হয়। যদি খিঁচুনি তীব্র হয় বা দীর্ঘসময় ধরে থাকে বা যদি অস্বস্তি বাড়ে বা খিঁচুনির জন্য নড়াচড়া না করা যায় তখন চিকিৎসার দরকার পড়ে। প্রচন্ডতা ও উপসর্গের প্রকৃতির উপর নির্ভর করে, আপনার চিকিৎসক আপনাকে কিছু পেশী রিলাক্সান্টস, স্নায়ু ব্লকারস্, সেডাটিভস্, এবং অ-প্রদাহজনক ওষুধগুলির পরামর্শ দিতে পারেন। এটা সাধারণত পাঁচ দিনের জন্য দেওয়া হয়। স্টেরয়েড সাধারণত প্রয়োগ করা হয় না। কিছু ওষুধের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া দেখা যায় যেমন ঝিমুনি, বমি বমি ভাব এবং দ্বীধান্বিত হওয়া। যখন ওষুধে কাজ হয় না তখন অপারেশন করতে পরামর্শ দেওয়া হয়, এবং আক্রান্ত জায়গায় টেন্ডন রিলিজ যুক্ত করা হয়।

নিজে যত্ন নেওয়ার মধ্যে থাকে রক্ষণাবেক্ষণের অধীনে নিয়মিত পেশীর প্রসারণ, অতিরিক্ত আঁট পোষাক না পড়া, জল খাওয়া, এবং যথেষ্ট পরিমানে ঘুম।

পেশীতে খিঁচুনির চিকিৎসা করা খুব গুরুত্বপূর্ণ নয়তো এর জন্য গাঁটে শক্তভাব, নড়াচড়া না করতে পারা এবং পেশী নষ্টও হতে পারে।

  1. পেশীর খিঁচুনি জন্য ঔষধ
  2. পেশীর খিঁচুনি ৰ ডক্তৰ
Dr. Kamal Agarwal

Dr. Kamal Agarwal

Orthopedics
8 वर्षों का अनुभव

Dr. Rajat Banchhor

Dr. Rajat Banchhor

Orthopedics
2 वर्षों का अनुभव

Dr. Arun S K

Dr. Arun S K

Orthopedics
6 वर्षों का अनुभव

Dr. Sudipta Saha

Dr. Sudipta Saha

Orthopedics
3 वर्षों का अनुभव

পেশীর খিঁচুনি জন্য ঔষধ

পেশীর খিঁচুনি के लिए बहुत दवाइयां उपलब्ध हैं। नीचे यह सारी दवाइयां दी गयी हैं। लेकिन ध्यान रहे कि डॉक्टर से सलाह किये बिना आप कृपया कोई भी दवाई न लें। बिना डॉक्टर की सलाह से दवाई लेने से आपकी सेहत को गंभीर नुक्सान हो सकता है।

Medicine Name
Zerodol Th खरीदें
Zerodol MR खरीदें
Dolser खरीदें
Albesylate खरीदें
D P Zox खरीदें
Diti खरीदें
Atracade खरीदें
Dynaford Mr खरीदें
Dolozin खरीदें
Atrelax खरीदें
Flexicam खरीदें
Roloflex खरीदें
Kabitran खरीदें
Hygesic खरीदें
Tizaran खरीदें
Tizapam खरीदें
Alcuron खरीदें
Gervec खरीदें
Imflamol Zx खरीदें
Tizpa D खरीदें
Parafon Dsc खरीदें
Neovec खरीदें
Infla M.R खरीदें
Lumbril खरीदें
और पढ़ें ...
ऐप पर पढ़ें